2021শে বাজারে আসছে গেরুয়া রঙের ফুলকপি

 গেরুয়া রঙের করোকিনা পশ্চিমবঙ্গের চাষের নতুন দিশা দেখছেন তারকেশ্বরের চাষীরা



এবার বাজারে দেখা মিলবে গেরুয়া রঙের ফুলকপি করো কিনা।  সেই নিয়ে চাষীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা গেলে হুগলির তারকেশ্বর চাঁপাডাঙ্গা এলাকায়।  পরীক্ষামূলক ভাবে কাজ শুরু হয়ে গেছে।  জানা গিয়েছে,  এই  বীজ উৎপাদনকারী সংস্থা এই গেরুয়া রঙের ফুলকপির নাম দিয়েছে করো কিনা।  তাদের দাবি 2021 এ প্রথম সপ্তাহে আসতে চলছে এই ফুলকপি।  আমাদের বাজারে চাষিরা সাধারণত যে সব ফুলকপি চাষ করেন তার রোগ ও পোকার আক্রমণ বেশি হয়।  কিন্তু এই গেরুয়া রঙের ফুলকপিতে রোগ ও পোকার আক্রমণ কম হয়।

  

বীজ উৎপাদনকারী সংস্থা বলেন,  তুলনামূলকভাবে অনেক অনেক কম তবে অন্যান্য কপির তুলনায় 4 কি 5 টাকা বেশি দামে এই গেরুয়া কপি কিনতে হবে সাধারণ মানুষকে।  বর্তমানে হুগলি জেলার তারকেশ্বর চাঁপাডাঙ্গা এলাকার একটি নার্সারিতে পরীক্ষামূলক ভাবে চাষ হচ্ছে।  বাজারে খুব তাড়াতাড়ি আসতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে তারকেশ্বরের ওই নার্সারি মালিক নির্মল কুমার জানান একটি নামকরা বীজ কোম্পানীর মাধ্যমে এই গেরুয়া রঙের ফুলকপির বীজ আমাদের কাছে এসে পৌঁছয়।  রোগ ও পোকার আক্রমণ কম হওয়ার জন্য কীটনাশক ওষুধ কম লাগে।  তাই এই কপির পুষ্টিগুণ বেশি খেতে সুস্বাদু হবে বলে জানান।  

কৃষি বিশেষজ্ঞ মহল একাংশের মতে এই গেরুয়া রঙের ফুল কপির চারা হতে সময় লাগে 20 থেকে 22 দিন পর্যন্ত আর 80 থেকে 90 দিনের মধ্যে ফুলকপি মাটি থেকে চাষিরা তুলে বাজারজাত করতে পারে জানা গিয়েছে।  রাজ্যে এটি দ্বিতীয় বছরের পরীক্ষামূলক ভাবে চাষ হচ্ছে।  যদি ফুলকপি চাষ করে লাভ পাওয়া যায় তাহলে আগামী দিনে চাষিরা উৎসাহিত হবেন।  এদিন এলাকার এক ফুলকপি চাষি জানান,  আমরা সাধারণ সাদা ফুলকপি চাষ করে থাকি যদি গেরুয়া রঙের ফুলকপি সমাজ গ্রহণ করে তাহলে এলাকায় বহু চাষে উৎসাহিত হবেন এবং এই ফসল চাষ শুরু করবেন তারা।



তথ্য সত্যতা - খবর প্রকাশিত হয়েছে, একদিন পেপারে - ৩০-১২-২০২১ 



আপনি আমাদের এই পোর্টালে লিখতে পারেন আপনার মতামত, প্রবন্ধ বা আপনার এলাকার জনপ্রিয় খবর দিতে পারেন । ( খবর বা লেখা পাঠাবেন মেইল মাফরত এবং বাংলা ফন্টে টাইপ করে সঙ্গে  ২ টি ফোট পাঠাবেন। আপনার সম্পুর্ন ঠিকানা এবং ফোন নাম্বার দেবেন , আপনার নাম ঠিকানা আমরা আপনারা মতামত মতে গোপনে রাখবো। )
নবীনতর পূর্বতন