তৃণমূল দলে এখন সম্মান নেই, অপমানিত হতে হচ্ছে- বিস্ফোরক তোপ বালির তৃণমূল বিধায়কের

এক সাক্ষাৎকারে বৈশালী ডালমিয়া ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন


মঙ্গলবার এর সকাল মোটেই তৃণমূল দলের জন্য ভালো ছিল না। তৃণমূলের জন্য আকাশ ভেঙে পড়া খবর।  মন্ত্রিত্ব ও দলীয় সাংগঠনিক পদ থেকে পদত্যাগ করলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার লক্ষ্মীরতন শুক্লা। মুখ্যমন্ত্রীকে নিজেই পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন তিনি। খেলার জগতে আবার ফিরে যেতে চান এমনই বক্তব্য লক্ষ্মীরতন শুক্লার। কিন্তু আরেক দিকে খুব স্বাভাবিক ভাবেই লক্ষ্মীরতন শুক্লার বিজেপিতে যোগদান নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। 


এদিকে লক্ষ্মীরতন শুক্লার ক্ষোভের কথা প্রকাশ্যে জানিয়ে তৃণমূলের বিরম্বনা আরো বাড়ালেন বালির তৃণমূল বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া। এক সাক্ষাৎকারে বৈশালী ডালমিয়া ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, " সকলের কথা বলব না।  তবে আমাদের দলের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন,  যারা আমাদের কাজ করতে দেন না।  কথায় কথায় আমাদের অপমানিত হতে হচ্ছে,  আমরা রাজনীতি করতে এসেছি সম্মানের জন্য। কিন্তু সম্মান আমরা পাচ্ছি কোথায়? লক্ষ্মী কে নিয়ে বৈশালী বলেন কুড়ি বছর ধরে লক্ষীকে চিনি। খুব ভালো একজন মানুষ। কিন্তু অপমান আর কাজ করতে দেওয়া না হলে কি করে যাব আর! দলীয় নেতৃত্ব সবাই জানেন।  কিন্তু তাতে লাভ হয়নি।  কিছু খারাপ লাগছে এটা ভেবে কাল লক্ষ্মীকে নিয়ে লেখা হবে ও বেইমান।  অথচ যারা ক্ষতি করেছেন, ঘুন পোকার মতো দলটাকে খেয়ে ফেলেছে তারা কেউই বেইমান নয়? এখন দলীয় তরফে ব্যবস্থা না নিলে মানুষ আর বিশ্বাস করবে না আমাদের দলকে। 

# আপনিও কি তবে লক্ষ্মীর পথে হাঁটবেন? 

এই প্রশ্নের জবাব অবশ্যই তিনি খোলসা না করে করে বলেন তিনি চুপ করে থাকবেন না তাই স্পষ্ট করে  দিয়েছেন। যদিও লক্ষ্মীর মতোই বৈশালীর বিজেপি যোগ নিয়েও কানাঘুষো কম নেই। পরিস্থিতিতে তার নিজের গলাতেই দল বিরোধী এমন সুরে গুঞ্জন আরো বাড়ানো। 

যদিও তৃণমূলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ লক্ষ্মীরতন শুক্লা বৈশালী ডালমিয়া কে একই পংক্তিতে রেখে বলেন" মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদের সম্মান দিয়েছে একটা জায়গা করে দিয়েছিলেন কিন্তু তারাই আজ এমন বলছেন এই সমস্ত মানুষদের যত তাড়াতাড়ি মুখোশ খুলে ততই ভালো" ।

এদিকে রাজ্য সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় লক্ষ্মীরতন শুক্লার পদত্যাগ নিয়ে বলেন,  ভোটের আগে দলের সেনাপতি দায়িত্বে থাকা কেউ যদি চলে যায় তাহলে সেটা যুদ্ধক্ষেত্র থেকে সরে যাওয়ার মতই ঘটনা।  নির্বাচনের আগেই কাজটা ঠিক করলেন না লক্ষ্মী।  তবে তাতে তৃণমূলের কিছু যায় আসবে না।  মমতা ব্যানার্জি অবশ্য বলেছেন ভালো করে খেলাধুলা করুক ও শুভেচ্ছা রইল আমার।

নবীনতর পূর্বতন