Ram Mandir: শুভেন্দু অধিকারী রামমন্দির নির্মাণে নিজের পেনশন থেকে অর্থ দান করলেন VIDEO

 রাম মন্দির নির্মাণে নিজের পেনশন ভাতার থেকে অর্থ দান করলেন শুভেন্দু অধিকারী

বিজেপি (BJP) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ( Dilip Ghosh) পর রাম মন্দির নির্মাণের জন্য অনুদান দিলেন বিজেপির প্রভাবশালী নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। বুধবার ভোর বেলা এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিশ্ব পরিষদের প্রান্ত কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে তিনি 2 লক্ষ 40 হাজার টাকার একটি চেক তুলে দিয়েছেন বিশ্ব পরিষদের প্রচারকদের হাতে।

দেশজুড়ে রাম মন্দির (Ram Mandir) নির্মাণের জন্য যে অর্থ সংগ্রহ অভিযান শুরু করেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এবং তার সহযোগী সংগঠনগুলো এবং তার সঙ্গে মানুষের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য অর্থ সংগ্রহ অভিযান করছে। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বক্তব্য প্রায় পাঁচশো বছর ধরে চলা এই আন্দোলন গোটা হিন্দুসমাজ অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে তাই এই মন্দির নির্মাণের জন্য প্রতিটি হিন্দুর কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করে একাত্মতার পরিচয় দেওয়া হলেও উদ্দেশ্য। ইতিমধ্যে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এবং সহযোগী সংগঠনগুলো রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অলিতে-গলিতে জনগণের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে অর্থ সংগ্রহ করছে। তাই তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে ইতিমধ্যে বিজেপির রাজ্য সভাপতি( Dilip Ghosh)  দিলীপ ঘোষ মহাশয় নিজের অনুদান দিয়েছেন। 


আজ বিজেপি প্রভাবশালী নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) মহাশয় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের শ্যামবাজার স্থিত প্রান্তীয় কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে রাম মন্দির নির্মাণ প্রকল্পে নিজের সংকল্প এবং অনুদান করে আসেন। বৈদিক মন্ত্র উচ্চারণ এর মাধ্যমে দান সংগ্রহ এক আলাদা মাত্রা দিয়েছে নিচে ভিডিও আছে দেখুন।



শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) মহাশয় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য অনুদান দেওয়ার পর বলেন , "ছোট্ট কাঠবিড়ালি যেমন শ্রী রাম সেতু নির্মাণে অবদান রেখে ভগবান শ্রী রামকে সেবা করার সম্মান পেয়েছিলেন, তেমন আমিও অযোধ্যায় শ্রী রাম জন্মভূমি মন্দির নির্মাণে অবদান রাখার শুভ সুযোগ পেয়ে বিনীত হয়েছি।" ”আমার সৌভাগ্য হয়েছিল রাম মন্দির আন্দোলনে থাকার।”


 কি ভাবে রাম মন্দির নির্মাণে নিজের অর্থ দান করবেন। 

১০ টাকা থেকে এক হাজার বা তার বেশি টাকা মন্দির নির্নাণে দান করতে পারবেন সবাই। ২,০০০ টাকার বেশি যাঁরা দান করবেন তাঁদের জন্য থাকবে বিশেষ কুপন ব্যবস্থা। মিলবে আয়করে ছাড়। ২০ হাজারের বেশি কেউ দান করতে চাইলে তা নেওয়া হবে চেকে।

কেন্দ্রের দেওয়া বিনামূল্যে ভ্যাকসিনকে ‘টিকাশ্রী” প্রকল্প ! ধন্যবাদ চিঠিতে লেখা ভ্যাকসিন তিনি পাঠিয়েছেন!

নবীনতর পূর্বতন